সব
ভ্রমন BUZZ

হাওর সৌন্দর্যের আধার

শীত আর বর্ষা, এ দুই সময়ে হাওরে পর্যটকদের আনাগোনা বেড়ে যায় বহু গুণ। যান্ত্রিকতায় মোড়ানো শহুরে জীবনকে কিছু দিনের জন্য হলেও বিদায়...

সীমানা ছাড়িয়ে শাপলার রাজ্য

দুই ঝর্ণার মিলন যেখানে

বাংলার আইফেল টাওয়ার

আরও ভ্রমন BUZZ

পাহাড় ট্রেকিংয়ে সতর্কতা

গত এক দশকে বাংলাদেশে ভ্রমণ প্রেমীর সংখ্যা বেড়েছে। একই ভাবে বেড়েছে ভ্রমণ প্রেমীদের জন্য পাহাড় ট্রেকিংয়ের সুযোগ। প্রকৃতির বুনো সৌন্দর্যে বুক ভরে নিঃশ্বাস নিতে বছর জুড়েই ভ্রমণপিপাসুদের দেখা মেলে ট্রেকিংয়ে। যদিও বেশ কিছু পাহাড়ি রাস্তায় ট্রেকিংয়ে পদে...

অদ্ভুত নাকি অবিশ্বাস্য-২

ইন্দোনেশিয়ার পাপুয়ায় টোনোটিওয়াট ম্যানগ্রোভে। খুবই সুন্দর এই ম্যানগ্রোভ বনটি পর্যটকদের জন্য আকর্ষণীয় এক স্থান। জানা-অজানা অসংখ্য প্রজাতির গাছ, পশু-পাখিসহ ছোট ছোট খাল আছে এই জঙ্গলে। তবে এই জঙ্গলের বিশেষত্ব হলো নারীরা এখানে স্বাধীনভাবে ঘোরাফেরা...

অদ্ভুত নাকি অবিশ্বাস্য-১

আমেরিকার সবচেয়ে ভয়ঙ্কর একটি বাড়ি। যেখানে ৫-৬ ঘণ্টার বেশি কেউই থাকতে পারেন না। তিনি যতই সাহসী হন না কেন। সবচেয়ে অবাক করা বিষয় হলো, এ বাড়ির মালিক রাশ ম্যাককেমি নিজেই সবাইকে আমন্ত্রণ জানান সেখানে ১০ ঘণ্টা কাটানোর জন্য। নিজের বাড়িকেই দর্শণীয় স্থান...

অদ্ভুত রঙের হ্রদ

ব্রাজিলের রিও গ্রান্দে দেল নর্তেতে অবস্থিত বিস্ময়কর এই হৃদটি। অন্যান্য হৃদের মতো এর পানি স্বচ্ছ নয়। ঠিক কোকাকোলার ন্যায় এই হৃদের পানি। তাইতো পর্যটকদের আকর্ষণের মূলকেন্দ্রে আছে এই হৃদটি। অনেকেই এই হৃদে সাঁতার কাটার স্বপ্ন দেখেন!

অভিযাত্রীদের জন্য দুয়ার খুললো এভারেস্টের

করোনার প্রথম ঢেউ শুরুর পর থেকেই অভিযাত্রীদের জন্য মাউন্ট এভারেস্ট অভিযান পুরোপুরি বন্ধ করে দেয় নেপাল সরকার। তবে এপ্রিলে এ সিদ্ধান্ত প্রত্যাহার করা হয়। তারপরই বেস ক্যাম্পে করোনা সংক্রমণ ধরা পড়ে। এরই পরিপ্রেক্ষিতে অভিযাত্রীদের ফিরিয়ে আনা হয়।

চোখ জুড়ানো মহেশখালী দ্বীপ

মহেশখালী বাংলাদেশের একমাত্র পার্বত্য দ্বীপ। কক্সবাজার শহর থেকে মাত্র ১২ কিলোমিটার পশ্চিমে বঙ্গোপসাগরে অবস্থিত। সোনাদিয়া, মাতারবাড়ি ও ধলঘাটা নামে ৩টি দ্বীপ নিয়ে মহেশখালী উপজেলা। ১৮৫৪ সালে গড়ে ওঠা এই দ্বীপ পান, মাছ, শুটকি, চিংড়ি, লবণ ও মুক্তার...

দেবতাখুমের টানে

যারা পাহাড় ভালোবাসেন, ঝর্ণা ভালোবাসেন; তাদের জন্য দেবতাখুম একটি চমৎকার জায়গা। বান্দরবানের রোয়াংছড়িতে অবস্থিত দেবতাখুম। বিশাল পাহাড়ের মাঝখানে বয়ে চলা সংকীর্ণ পথের সুগভীর এই ঝর্ণার দৈর্ঘ্য প্রায় ছয়শ ফুট।

জলরাশির বুকে ভেসে চলা

চারদিকে বিশাল জলরাশি। এতে ফুটে আছে বাহারি শাপলা। ছোট ছোট নৌকায় শিশুসহ বয়স্কদের কেউ কেউ মাছ ধরছে আবার কেউ শাপলা তুলছে। জলরাশির মধ্যেই কয়েকটি বিশালাকার গাছ মাথা উঁচু করে দাঁড়িয়ে আছে। প্রকৃতির এমন অদ্ভূত সৌন্দর্য দেখে মুহূর্তেই আপনি হারিয়ে যাবেন...

মুগ্ধতা ছড়িয়ে আছে মাধবকুণ্ড জলপ্রপাতে

দেশের সবচেয়ে বড় ঝরনাটিই মাধবকুণ্ড জলপ্রপাত নামে পরিচিত। ১৬২ ফুট উঁচু এই জলপ্রপাতটি দেখতে সবাই ভিড় জমায়। সিলেটের মৌলভীবাজার জেলায় অবস্থিত এটি। ১৯৯৯ সালের ১২ অক্টোবরের তথ্য অনুসারে, গঙ্গামারা ছড়া হয়ে বয়ে আসা জলধারাটি প্রায় ১৬২ ফুট উঁচুতে...

সবই মিলছে একসাথে এক প্ল্যাটফর্মে

প্রযুক্তি উন্নয়নে বৈশ্বিক প্রবণতার সঙ্গে এগিয়ে যাওয়ার জন্য অনলাইনে ভ্রমণ চাহিদা পূরণের লক্ষ্যে ‘ট্রিপলাভার’ বাংলাদেশ ট্রাভেল মার্কেটে এক বড় ধরনের পরিবর্তন ঘটানোর জন্য আবির্ভূত হয়েছে। ট্রিপলাভার ইউএস-বাংলা গ্রুপের একটি সহযোগী প্রতিষ্ঠান। ভ্রমণ...

একসাথে দুরকম সৌন্দর্য দর্শন

খাসিয়া জৈন্তিয়া পাহাড়ের পাদদেশে অবস্থিত জাফলং। পিয়াইন নদী তীরের সাজানো সব পাথর জাফলংয়ের প্রধান আকর্ষণ। বর্ষা ও শীতকালে জাফলংয়ের সৌন্দর্য বেড়ে যায় দ্বিগুন। বর্ষাকালে বৃষ্টিস্নাত গাছপালা আর খরস্রোতা নদীর সৌন্দর্য হয় দেখার মতো।

মিরিকজুড়ে মায়াবী দৃশ্য

দার্জিলিং জেলার পাহাড়ে অবস্থিত একটি অপূর্ব সুন্দর প্রাকৃতিক দৃশ্য শোভিত স্থান মিরিক। মিরিক শব্দটি এসেছে লেপচা শব্দ 'মির-ইয়ক' থেকে। এর অর্থ 'আগুনে পুড়ে যাওয়া স্থান'। মিরিক শহরটির অবস্থানের অক্ষাংশ ও দ্রাঘিমাংশ হল ২৬.৯° উত্তর ৮৮.১৭° পূর্ব। সমূদ্র...

কাঠমান্ডুর ধারাহারা টাওয়ার

নেপালের রাজধানী কাঠমান্ডুর ধারাহারা টাওয়ার ছিলো পর্যটকদের মধ্যে ব্যাপক জনপ্রিয়। ছয় বছর আগে ভূমিকম্পে বিধ্বস্ত হয় এটি। অবিকল এর মতোই একটি টাওয়ার গড়ে তোলা হয়েছে কাঠমান্ডুতে।

দেয়ালজুড়ে ইতিহাস সোনাকান্দায়

সোনাকান্দা দুর্গ ও সোনাকান্দা নাম নিয়ে রয়েছে মর্মস্পর্শী দুটি কাহিনী। নারায়ণগঞ্জ জেলার বন্দর উপজেলা সোনাকান্দায় সোনাকান্দা দুর্গের অবস্থান। দুর্গটি বাংলার বারো ভূঁইয়ার অন্যতম ঈশা খাঁ ব্যবহার করতেন। বাংলার সুবেদার ও সেনাপতি মীরজুমলা ১৭ শতকের...

প্রকৃতির আরেক রাজ্য হাতিয়া

মেঘনা আর বঙ্গোপসাগরের বিশাল জলরাশির প্রচণ্ড দাপটে অনেকটা মাগুর কিংবা ডলফিনের আকৃতি নিয়ে দৃশ্যমান হাতিয়া। উঁচু-নিচু পাথরের পথ পাড়ি দিতে অথবা সমুদ্রের অথৈ জলরাশির ছোঁয়া পেতে এখানে ছুটে আসেন অনেকে। অনাবিল আনন্দে মেতে ওঠার উপযুক্ত কয়েকটি স্থানের মধ্যে...
লোডিং...
cancerbd.net